পিছিয়ে নেই মাঝেরগ্রাম! এমন কান্ডে থ শহর কলকাতা!

majhergram food delivery app
Spread the love

খাবারের হোম ডেলিভারী! তাও আবার এই গ্রামে! ভাবা যায়? বড়ো বড়ো শহরের সঙ্গে মফঃস্বল ই তাল মেলাতে পারছে না। সেখানে নদীয়ার এই অপরিচিত গ্রামে শুরু হয়েছে খাবারের হোম ডেলিভারী। শুধু তাই নয় , এপসের মাধ্যমে খাবার অর্ডার করা যাচ্ছে। ডেলিভারী পৌঁছে যাচ্ছে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই!

মাঝেরগ্রামের নতুন প্রজন্মের অধিকাংশই খাদ্যরসিক। কিন্তু রসনা তৃপ্তির জন্য তাদের ছুটতে হতো পছন্দের রেস্টুরেন্টে। সেখানে ভিড় ভাট্টা ঠেলে তারপর পছন্দের খাবার পাওয়া যায়। ডিজিটাল যুগের হাওয়া লাগলেও সেই সেকেলে পদ্ধতিতে চলছিল খাওয়া দাওয়ার পর্ব।

অবশেষে Treazer App নিয়ে এল সেই সুবিধা। মাঝের গ্রামের ‘উল্লাস ফুড প্লাজা’ Treazer app এ লিষ্ট করিয়ে রমরমা চলছে হোম ডেলিভারী। যদিও এই দোকানটা Pizza এর জন্য বিখ্যাত, তবুও এর সঙ্গে রয়েছে বিরিয়ানি, কে এফ সি, রোল, চাউ সহ অনেক কিছু। আর একদম রেস্টুরেন্টের দামে ঘরে বসেই পেয়ে যাচ্ছে পছন্দের খাবার।

treazer app

এই সম্পর্কে উল্লাস ফুড প্লাজার মালিক লিটন মজুমদার বলেছেন,

litan mazumdar

“Treazer App এসে আমার সুবিধা হয়েছে, এখানে তারা আমার থেকে কোন কমিশন , রেজিস্ট্রেশন ফী নিচ্ছে না। ফলে খাবারের দাম বাড়াতে হচ্ছে না, Zomato, Swiggy মালিকের থেকে কমিশন রেজিস্ট্রেশন ফী নেয় তাই বাধ্য হয়েই খাবারের দাম বাড়াতে হয় অনলাইনে। কাষ্টমারও ঘরে বসেই পছন্দের খাবার ডেলিভারী পাচ্ছে। তারাও এই সার্ভিসে খুব খুশি।”

লিটন মজুমদার, উল্লাস ফুড প্লাজা

রায় কেবিন , আর জে এস বিরিয়ানি , উন্মাদের আস্তানা, গ্যারিসন এর মতো বড়ো রেস্টুরেন্ট এবং ক্যাফে Treazer App এ লিষ্ট করানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। ডিজিটাল দুনিয়ায় ভবিষ্যতে হয়তো আরও চমক দিতে চলেছে মাঝেরগ্রাম।


Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published.